1. mznrs@yahoo.com : MIZANUR RAHMAN : MIZANUR RAHMAN
  2. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন

যথাযোগ্য মর্যাদায় হাজী মকবুলের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত।। দেশ আলো

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২
  • ১৯৯ জন সংবাদটি পড়েছেন।

আব্দুল্লাহ আল হাসিব: আলহাজ্ব মকবুল হোসেন  কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সাবেক সদস্য, সি আই পি, ঢাকা-৯ আসনের সাবেক এমপি, বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী ও সফল ব্যাবসায়ী মরহুম আলহাজ্ব মকবুল হোসেনের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার (২৪মে) আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজের উদ্যোগে কলেজ প্রাঙ্গনে স্মরণসভা ও তাঁর আত্নার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

প্রায়াত হাজী মকবুল হোসেনের কবর জিয়ারতের মাধ্যমে দিবসটির কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর দুপুরে কলেজ প্রাঙ্গনে স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কলেজের অধ্যক্ষ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর আ ফ ম রেজাউল হাসান। কলেজ প্রতিষ্ঠাতা মরহুম হাজী মকবুল হোসেনের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, দুইবছর আগে আজকের এই দিনে করোনা মহামারীর ভয়াবহ দুঃসময়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে যেয়ে জীবন উৎসর্গ করে গেছেন আমাদের প্রিয় চেয়ারম্যান মহোদয়। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। আমরা তাঁকে শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করি ও বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করি।

তিনি বলেন, ২০০৯ থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের যেকয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সবচেয়ে এগিয়ে গিয়েছে তার মধ্যে আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজ অন্যতম। চারটি বিষয়ে অনার্স দিয়ে শুরু করা কলেজে আজ ১৭টি বিষয়ে অনার্স ও শূন্য মাষ্টার্স দিয়ে শুরু করা কলেজে এখন ৬টি বিষয়ে মাস্টার্স শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। রেজাউল হাসান বলেন, আমি গর্ব করে বলতে চাই ২০০৯ সালে ৪০০ জন ছাত্র নিয়ে যাত্রা শুরু করা কলেজটিতে ২০২০ সালে ছাত্র সংখ্যা সাড়ে এগারো হাজারে পৌঁছায়। আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজের জন্য স্যারের অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

স্মরন সভায় উপস্থিত ছিলেন কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও মরহুম হাজী মকবুল হোসেনের পুত্র আলহাজ্ব মুজিবুল ইসলাম, মোহাম্মদপুরের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাদেক খান, ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি- আলহাজ্ব বজলুর রহমান, মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার সহ কাউন্সিলবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এসময় বক্তারা মরহুম আলহাজ্ব মকবুল হোসেনের স্মৃতিচারণ করে তার জীবনাদর্শ আলোচনা করেন। সবশেষে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়।

এছাড়াও কলেজের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী বৃন্দ ও বিভিন্ন প্রিন্ট-ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ফেসবুক লাইভের মাধ্যমেও অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

উল্লেখ্য, বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব, সাবেক সংসদ সদস্য, সি আই পি, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য মরহুম আলহাজ্ব মকবুল হোসেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ২০২০ সালের ২৪ মে মারা যান।

তিনি ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে ধানমণ্ডি-মোহাম্মদপুর আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। তিনি কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।

দৈনিক আল আমীন পত্রিকা, সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কো.লি., সিটি ইউনিভার্সিটি, এম এইচ শমরিতা হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজ, পান্না টেক্সটাইল মিলস লি., মোনা প্রপার্টিজ, এমিকো ল্যাবরেটরিজ লি. মোনা সিকিউরিটিজ, আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজসহ বেশ কয়েকটি ব্যাংক, বীমা, বাণিজ্যিক, শিল্প, অর্থলগ্নী প্রতিষ্ঠান, সামাজিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ মোনা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন, এফবিসিসিআইসহ বেশকিছু এসোসিয়েশনের সদস্য ছিলেন। উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত প্রতিষ্ঠান গড়ার কারিগর এ মানুষটির জন্মস্থান মুন্সিগঞ্জের টুংগীবাড়ি হলেও ছাত্রজীবন থেকে তিনি মোহাম্মদপুরের মাটি ও মানুষের সাথে জীবন কাটিয়েছেন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি মোহাম্মদপুরের মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন।

বর্তমানে তার ছেলে আহসানুল ইসলাম টিটু একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য হিসেবে টাঙ্গাইল-৬ আসনের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design Developed By : JM IT SOLUTION