1. mznrs@yahoo.com : MIZANUR RAHMAN : MIZANUR RAHMAN
  2. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমোহনে নবাগত ইউএনও‘র সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা  চুরির অপবাধে ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীর ২ হাত বেধে নির্যাতন মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে লালমোহনে প্রস্তুতিমূলক সভা বরিশাল নগরীতে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়েছে কিশোর গ্যাং বাহিনী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় ভারত।। দেশ আলো শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে কৃষকরা ফসলের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে-এমপি শাওন এসএসসির ফলাফলে শীর্ষে লালমোহন হা-মীমের উন্নয়নের ধারা যাতে অব্যাহত না থাকে সেজন্য ষড়যন্ত্রকারীরা বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে- এমপি শাওন কোকো লঞ্চ ডুবির ১৩ বছর : মালিকের দায় এড়ানোর সুযোগ নেই-এমপি শাওন ক্লিনিক্যালি মৃত্যু থেকে নতুন জীবন পেলো আর্জন্টিনা

কীর্তনখোলার পাড়ে জনতার ঢল; নয়া রাজনীতির জন্ম দিলো বরিশাল।। দেশ আলো

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৮৪ জন সংবাদটি পড়েছেন।

বিশেষ প্রতিনিধি, বরিশাল সদরঃ শত বাধা বিপত্তি ও প্রতিবন্ধকতার পরও লাখো জনতার অংশগ্রহণে বরিশালে বিএনপির গনসমাবেশ নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা আগেই শুরু হয়।

সমাবেশে যোগ দিতে তিন দিন আগে থেকেই নানা পন্থায় শহরে জড়ো হতে থাকেন দলটির নেতা, কর্মী, সমর্থকেরা। সমাবেশ ঘিরে সড়ক ও নৌপথের সব ধরনের যানবাহন বন্ধ করে দেওয়ায় শুক্রবার সকাল থেকেই বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বরিশাল। সর্বশেষ ক্ষমতাসীন দলের মিছিল ও মহড়াকে কেন্দ্র করে ছিল শঙ্কাও। তবে শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে বড় সমাবেশ করেছে বিএনপি।

নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা আগেই শনিবার (৫ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে কোরআন তেলাওয়াত শেষে সমাবেশ শুরু হয়। সভার আধাকিলোমিটার জুড়ে চলপ বিএনপির খণ্ড খণ্ড মিছিল। বেলা বাড়ার সাথে সাথে সমাবেশস্থল কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে নেতা-কর্মীরা আশে-পাশের সড়কে অবস্থান নিয়েছেন।

সভামঞ্চের মাঝের দুইটি চেয়ার বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্য খালি রাখা হয়েছে।

গতকাল বিকেলে বরিশাল নগরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে (বেলস পার্ক) এই সমাবেশ হয়। সব বাধা উপেক্ষা করে সমাবেশ সফল করার জন্য বরিশালবাসীকে অভিবাদন জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন নয়!

গণসমাবেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছিলেন প্রধান অতিথি। তিনি বর্তমান সরকারের অধীন নির্বাচনে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আবারও বলেন, ‘আমাদের কথা খুব পরিষ্কার যে হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না, এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না।’

বর্তমান সরকারকে ‘ভোট চোর’ বলে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার ২০১৪ সালে ভোট চুরি করেছে, ২০১৮ সালে করেছে। এখন আবার নতুন করে নির্বাচন নিয়ে নতুন সব বুদ্ধি আঁটছে। নতুন নির্বাচন কমিশনকে দিয়ে এমন একটা ধারণা দেওয়া হচ্ছে যে এটা বোধ হয় একেবারে নিরপেক্ষ হবে। ইভিএমে ভোটের কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

বরিশালে বিএনপির গন সমাবেশে মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।। দেশ আলো

মির্জা ফখরুল বলেন, আগে এই সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, সংসদ বিলুপ্ত করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা দিতে হবে। সেই সরকার নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করবে, সেই কমিশন নতুন করে নির্বাচন করবে এবং সেই নির্বাচনে জনগণের একটা সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে।

সরকারবিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে নিয়ে ‘জাতীয় সরকার’ গঠন করার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, ‘এটুকু কথা আপনাদের দিতে পারি, আন্দোলনের পরে যেই নির্বাচন হবে, সেই নির্বাচনের পরে যারা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করবে, তাদের সঙ্গে নিয়ে বিএনপি জাতীয় সরকার গঠন করবে। সবার সঙ্গে আলোচনা করে দেশের সংকটগুলো সমাধান করা হবে।’

১৫ মিনিটের বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব বিনা মূল্যে সার, ঘরে ঘরে চাকরি এবং ১০ টাকা কেজিতে চাল খাওয়ানোর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে সরকারের কড়া সমালোচনা করেন। ১৪ বছর ধরে বিরোধী দল ও আলেম-ওলামাদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন হচ্ছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, হামলা ও মামলা আওয়ামী লীগের বড় অস্ত্র। যাদের ওপর হামলা করে, আবার তাদের বিরুদ্ধেই তারা মামলা দেয়। আজকে আলেম-ওলামারাও রেহাই পাচ্ছেন না। তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হচ্ছে। কেউ নিরাপদ নয় এখানে।

দেশের অর্থনৈতিক সংকটের জন্য সরকারকে দায়ী করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এখন বলছেন আমি কী করব, বৈশ্বিক সংকট, ডলারের সংকট। কিন্তু তখন মনে ছিল না, যখন টাকাগুলো চুরি করে পাচার করছিলেন। সেই কানাডা, মালয়েশিয়া আর ইউরোপে বাড়ি বানাচ্ছিলেন, তখন মনে ছিল না?’ তিনি বলেন, ‘এমন ঢাকঢোল পেটাল যে বিদ্যুতে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়ে গেছি। হাতিরঝিলে আতশবাজি করল, সেই বিদ্যুৎ এখন আর নেই। সকালে হোটেলে ছিলাম, কমপক্ষে ১০ বার বিদ্যুৎ গেল আর এল। এই বিদ্যুতে তারা হাজার হাজার কোটি টাকা চুরি করেছে। এমন একটা জায়গা পাবেন না, এমন একটা ক্ষেত্র নেই, যেখানে তারা চুরি করেনি।’

বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. বিলকিস জাহান শিরীন বলেন, “সরকারের কোনো বাধাই কাজে আসেনি। মাঠ নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষ ও নেতা- কর্মীরা হেটে, ভ্যান, রিকশা চড়ে, ট্রলার, নৌকা, মাছ ধরা নৌকা ও লঞ্চে সমাবেশ স্থলে এসে পৌঁছেছেন।”

তিনি বলেন, “মাঠ পরিপূর্ণ হওয়ায় সমাবেশের সময় এগিয়ে এনে দ্রুত সমাবেশ শেষ করার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। নেতা-কর্মীরা দিনের আলোতে যেন ফিরে যেতে পারে, সেই জন্য।”

এদিকে, বরিশালে খেয়া পারাপারের ট্রলার, লঞ্চ, বাস, মাইক্রোবাস, মাহিন্দ্র টেম্পু, সিএনজি চলাচলে ধর্মঘট দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে। এতে সমাবেশে আগত নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সঙ্গে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষও।

বাংলাদেশ জেগে উঠেছে!

সমাবেশে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন, ‘বরিশাল এসে শুনলাম, চারদিকে বাধা হচ্ছে। ভয় পেয়ে গেলাম যে এই বাধার মধ্যে নদীনালার দেশ, বরিশালের লোকগুলো কীভাবে আসবে। যেভাবেই হোক তারা কিন্তু এসেই গেছে। এটা বিএনপির প্রতি ভালোবাসা এবং দেশের প্রতি ভালোবাসা। সারা বাংলাদেশ আজকে জেগে উঠেছে। এদের কেউ থামিয়ে রাখতে পারবে না।’

পদত্যাগ করে আসুন, খেলা হবে!

স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, দেশ যখন একটি সংকটময় সময়ে, তখন আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন ‘খেলা হবে’। তিনি বলেন, ‘খেলা তো হবে, তবে কার সঙ্গে খেলব। আওয়ামী লীগ হচ্ছে থার্ড ডিভিশনে টিম, আর বিএনপি হচ্ছে ফার্স্ট ডিভিশনের টিম। তাদের যদি ফার্স্ট ডিভিশনে খেলতে হয়, তাহলে আগে সরকার থেকে তাদের পদত্যাগ করতে হবে, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে হবে। তারপর মাঠে আসুন, খেলা হবে।’

স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান বলেন, তিন দিন ধরে হাটে মাঠে ঘাটে যুদ্ধ করে দক্ষিণাঞ্চলবাসী জানিয়ে দিয়েছে, তারা এ সরকারকে আর দেখতে চায় না।

বরিশাল মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর, হাফিজ উদ্দিন আহমদ, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, জয়নাল আবেদীন, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, আবদুল আউয়াল মিন্টু, যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন ও হাবীব-উন নবী খান, বিএনপির মিডিয়া সেলের প্রধান জহির উদ্দিন স্বপন, সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস আক্তার জাহান প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design Developed By : JM IT SOLUTION