1. mznrs@yahoo.com : MIZANUR RAHMAN : MIZANUR RAHMAN
  2. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লালমোহন যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ভাষা শহীদদের প্রতি মকবুল হোসেন কলেজ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা।। দেশ আলো যথাযোগ্য মর্যাদায় আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কলেজে মাতৃভাষা দিবস পালিত লালমোহনে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত আমতলী পৌরসভার মেয়র প্রার্থীর বিরুদ্ধে আরেক প্রার্থীর আচরণ বিধি লঙ্ঘণের অভিযোগে  লালমোহনে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে চারা রোপণের উদ্বোধন লালমোহনে নদী থেকে প্রায় ২৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার কলাগাছ ও বাঁশের অস্থায়ী মিনারেই শ্রদ্ধা নিবেদনের ভরসা! ৭২ বছরেও শহীদ মিনার নির্মাণ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা লোভনীয় মুনাফার প্রতারণায় সর্বস্বান্ত সহস্রাধিক গ্রাহক মালিককে কেটে টুকরা টুকরা করে নদীতে ফেলে দিয়ে ট্রলার ও টাকা নিয়ে আসলেন ঘাতক!

বরিশাল বিআরটিসিতে যাত্রী ভোগান্তি চরমে

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৪৪ জন সংবাদটি পড়েছেন।
sdr

বরিশাল প্রতিনিধি: কোথাও দড়ি বাঁধা আবার কোথাও জোড়াতালি, তারের সঙ্গে তার জোড়া দিলে তবেই স্টাট নেয় গাড়ি। ভাঙ্গা বডি ও লক্কড়-ঝক্কড় ফিটনেস বিহীন বাস দিয়েই বরিশাল সহ দক্ষিনাঞ্চলে টিকিয়ে রাখা হচ্ছে রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থা বিআরটিসির যাত্রী সেবা। বাসে এসি নষ্ট থাকা সত্ত্বেও যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে এসি গাড়ির ভাড়া।

বিআরটিসি বাস নিয়ে যাত্রীদের অভিযোগ আর ক্ষোভের যেন শেষ নেই। বাসগুলোর অবস্থা এতোটাই করুন যে, যাত্রপথে বৃষ্টিতে ভিজতে হয় যাত্রীদের। পদ্মাসেতু চালুর পর যাত্রী চাপ বেড়েছে। সেইসঙ্গে বেড়েছে আয়। তবে যাত্রী সেবার মান বাড়েনি। অথচ পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর যাত্রীচাপ ও আয় দুটোই বাড়লেও যাত্রী সেবার মান বাড়েনি।

সরেজমিনে বিআরটিসির বরিশাল ডিপো ঘুরে দেখা যায়,
অনেক বাসেরই নেই ফিটনেস। কোনোরকম জোড়াতালি দেয়া ৫৩টি বাস দেশের ১৭টি রুটে যাত্রী পরিবহন করছে। এর আগে ৭১টি বাস থাকলেও বিভিন্ন সময় মেরামতে সেগুলো ঠিক না হওয়ায় বাতিল করা হয়েছে ১৮টি বাস।

ফাতেমা আক্তার নামের এক যাত্রী জানান, বিআরটিসি কোন রুটের গাড়িই ভালো না। সব লক্কড়-ঝক্কড় বাস চলে তাদের। দ্রুত বাসগুলো পাল্টানো উচিত। এছাড়া সময়মত কখনোই গাড়ি ছাড়ে না। আমরা টাকা দিয়ে টিকিট কেটে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছি। এসব থেকে মুক্তি চাই।

এসব ভোগান্তির বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ বিআরটিসির কর্মচারীরা। উল্টো বাসগুলোর কোথাও কোনো সমস্যা নেই বলে দাবি তাদের।

এদিকে আগে লোসান দেখানো হলেও গত ৫ বছর ধরে কোনো লোকসান নেই বরিশাল ডিপোর। সর্বশেষ গত ২০২২-২৩ অর্থ বছরে সব ব্যয় বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির লাভ হয়েছে ৪ কোটি ৬৬ লাখ ৬১ হাজার ৬৬৫ টাকা।

বিআরটিসি বরিশাল ডিপো ম্যানেজার জামশেদ আলী জানান, নতুন বাস দ্রুত সংযোজনের বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলবেন তিনি।

১৯৯২ সালে নগরীর নথুল্লাবাদ এলাকা থেকে বিআরটিসির যাত্রা শুরু হয়। প্রতিদিন গড়ে ৭ থেকে ৯ শতাধিক যাত্রী বরিশাল থেকে বিআরটিসি বাসে চলাচল করেন। বর্তমানে ৭৭ জন চালক সহ ডিপোটিতে ১৩৩ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী রয়েছেন।

আব্দুল্লাহ আল হাসিব, বরিশাল।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design Developed By : JM IT SOLUTION