1. mznrs@yahoo.com : MIZANUR RAHMAN : MIZANUR RAHMAN
  2. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বরিশাল জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু, সভাপতি: বিপ্লব; সম্পাদক: তোহা বরিশাল মহানগর ক্লাবের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য হলেন অধ্যক্ষ রেজাউল হাসান।। দেশ আলো বরিশালে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মহানগর ছাত্রদলের মিলাদ আইজিসি’র আয়োজনে “প্রি-ডিপারচার অরিয়েন্টেশন এন্ড ফেয়ারওয়েল অনুষ্ঠিত।। দেশ আলো লালমোহন বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম জন্মদিন পালিত লিও জেলা ২৭ তম বার্ষিক সম্মেলনে পূর্বাচল লিও পরিবারের অর্জন মেন্টাল পিচ সাপোর্ট এর দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আগরপুর ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের গণজোয়ার আলহাজ্ব মকবুল হোসেনের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

বরিশাল সিটিতে ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হলেন জিয়াউর রহমান বিপ্লব।। দেশ আলো

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৩ জুন, ২০২৩
  • ৪৫৭ জন সংবাদটি পড়েছেন।

আব্দুল্লাহ আল হাসিব, বরিশাল: বরিশাল সিটি করপোরেশন (বিসিসি) নির্বাচনে ২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন আলহাজ্ব জিয়াউর রহমান বিপ্লব। তিনি ঠেলাগাড়ি প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে ফলাফল ঘোষণার পরপরই আনন্দ উল্লাস ও বিজয় মিছিল করেন কর্মী-সমর্থকরা। এছাড়া স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠন ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এসময় তিনি সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় ২০ নং ওয়ার্ডকে বরিশাল নগরীর মধ্যে মাদক, সন্ত্রাসমুক্ত রোল মডেলে পরিনত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। তাকে পুনরায় নির্বাচিত করায় ওয়ার্ডবাসীর নিকট তিনি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

ওয়ার্ডের স্থানীয়রা জানান, মানবিক মূল্যবোধের অধিকারী সম্পন্ন ও শিক্ষিত ব্যক্তিত্ব, সমাজসেবক আলহাজ্ব জিয়াউর রহমান বিপ্লব জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সময় মানুষের সেবার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে যাচ্ছেন। সমাজের গরীব, দুঃখী ও অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের দুর্ভোগ লাঘবের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। স্কুল, কলেজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায়সই নানাবিধ চাহিদা সাধ্যমত পূরণ করেছেন তিনি। মানবিক ও সমাজ সেবামূলক নানা কর্মকান্ডে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। ইতোমধ্যে তিনি ওয়ার্ডবাসীর কাছে মানবিক কাউন্সিলর হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন।

এদিকে বিসিসি’র নির্বাচিত অন্যান্য কাউন্সিলরবৃন্দ হলেন-
১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে আউয়াল মোল্লা, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মুন্না হাওলাদার, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান ফারুক, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে সৈয়দ আবিদ, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে কেফায়েত হোসেন রনি, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে খান মো. জামাল হোসেন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে রফিকুল ইসলাম খোকন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সেলিম হাওলাদার, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে লিংকু, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে জয়নাল আবেদীন, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে মজিবর রহমান, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে রয়েল, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে মেহেদী পারভেজ খান আবির, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে শাকিক হোসেন পলাশ, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে সামজিদুল কবির বাবু, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে শাহিন সিকদার, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে আক্তারুজ্জামান হিরু, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে মাসুম হাওলাদার, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে গাজী নঈমুল হোসেন লিটু, ২১ নম্বর ওয়ার্ডে সাইদ আহমেদ মান্না, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে আনিছুর রহমান দুলাল, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে এনামুল হক বাহার, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে ফিরোজ আহমেদ, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে সুলতান মাহমুদ, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে হুমায়ুন কবির, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে মনিরুজ্জামান তালুকদার, ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে হুমায়ুন কবির, ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে ইমরান মোল্লা ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে শাহিন হাওলাদার।

সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ডালিয়া পারভীন; ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আলম তাজ বেগম; ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কোহিনুর বেগম; ১০, ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডে আয়শা তৌহিদ লুনা; ১৩, ১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে লাভলী বেগম; ১৬, ১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে মজিদা বোরহান; ১৯, ২০ ও ২১ নম্বর ওয়ার্ডে শীলা আক্তার; ২২, ২৩ ও ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে রেশমি বেগম; ২৪, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে সেলিনা বেগম এবং ২৮, ২৯ ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে রাশিদা পারভিন।

এবার ৩০টি ওয়ার্ডে ১২৬টি কেন্দ্রের ৮৯৪ কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। মোট ভোটার ছিল ২ লাখ ৭৬ হাজার ২৯৮ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৩৮ হাজার ৮০৯ জন এবং পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩৭ হাজার ৪৮৯ জন। ভোট পর্যবেক্ষণে ১১৪৬ টি সিসি ক্যামেরা ছিল। এরমধ্যে মোট ১ লাখ ৪২ হাজার ১৭৭ জন ভোট দিয়েছেন। যেখানে অবৈধ বা বাতিলকৃত ভোটের সংখ্যা মাত্র ৪২১ টি। সেই হিসেবে মোট বৈধ ভোটের সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ৭৫৬টি। আর এ হিসেবে ভোট প্রদানের শতকরা হার ৫১.৪৬ শতাংশ।

ভোটে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে চার হাজার ৪০০ পুলিশ, আনসার, এপিবিএন, র‍্যাব দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন।

নির্বাচনে ৭ জন মেয়র প্রার্থীসহ মোট ১৬৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design Developed By : JM IT SOLUTION